প্রফেশনাল সিভি(CV) ও টেমপ্লেট ব্যবহার

ভাল মানের একটা প্রফেশনাল সিভি(CV), আমাদের জব ইন্টারভিউতে কল পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বাড়িয়ে দিতে পারে। যেহেতু সিভি(CV) এর মাধ্যমে নিয়োগকর্তা আপনার সম্পর্কে প্রথম জানতে পারে বা প্রথম ইম্প্রেশন ক্রিয়েট হয়, একটু যত্ন নিলেই খুব সহজে আমাদের সিভি(CV) তে ভিন্ন মাত্রা যুক্ত করে HR দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারি।

চাকরির আবেদনের জন্য জীবনবৃত্তান্ত (সিভি) খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, সহজ ও সুন্দরভাবে সিভি লেখা। কারণ, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হওয়ার পর ওই প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ বিভাগে হাজারো সিভি জমা পড়ে। এসব সিভির ভিড়ে আপনার সিভি যেন কর্তৃপক্ষের নজরে পড়ে, তা নিশ্চিত করাটা জরুরি।

আবার ছোটখাটো ভুলের কারণেও আপনার সিভি বাদ পড়তে পারে। এসব ভুল এড়িয়ে চলতে হবে। প্রতিনিয়ত চাকরির ধরন পরিবর্তন হচ্ছে। নতুন নতুন পদ সৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে কর্মীর দক্ষতা ও যোগ্যতায় ভিন্নতা আসছে। এসব বিবেচনায় সব মিলিয়ে সিভি লেখার ক্ষেত্রেও প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসছে। যুক্তরাষ্ট্রের ফোর্বস সাময়িকীর এক প্রতিবেদনে ফোর্বস কোচ কাউন্সিলের ২০ জন সদস্য কীভাবে চাকরিপ্রার্থীরা নির্ভুল সিভি লিখবেন, সে বিষয়ে ২০টি কার্যকর পরামর্শ দিয়েছেন।

১. সহজ করে লিখুন
ক্যারিয়ার কোচ ও সিভি লেখার প্রতিষ্ঠান পোস্ট আপ ক্যারিয়ারসের প্রতিষ্ঠাতা ফ্রাঙ্কলিন বুচানন বলেছেন, সিভির ফরম্যাট যত সহজ হবে, তত ভালো। অনলাইনে চাকরি খোঁজার সাফল্যের সর্বোত্তম পথ হলো একটি সাধারণ ও সহজ সিভি। সিভিতে যোগাযোগের তথ্যের পাশে আপনার পোর্টফোলিও, ওয়েবসাইট, গিটহাব প্রোফাইল বা লিংক দিয়ে দিতে পারেন।

২. দক্ষতার বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে
আউটপ্লেসমেন্ট অস্ট্রেলিয়ার হেড অব ট্যালেন্ট মার্কেটিং গিলিয়ান কেলি বলেছেন, ২০২৩ সালে এসে চাকরির ক্ষেত্রে মানুষের দক্ষতা গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি যাঁরা প্রযুক্তিগত ভূমিকার জন্য নিয়োগ দেন, তাঁরা প্রায় সময় অংশীদারত্ব, সমালোচনামূলক চিন্তাভাবনা, সামাজিক বুদ্ধিমত্তা, যোগাযোগ, দৃষ্টি ও প্রভাবের মতো পরিপূরক দক্ষতার খোঁজ করেন। শক্তিশালী সিভির কাজ হলো, একসঙ্গে এসব দক্ষতা প্রদর্শন করা। এ ক্ষেত্রে আগের প্রতিষ্ঠানে দক্ষতার প্রভাব দেখাতে ছোট্ট করে সাফল্যের গল্প উল্লেখ করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *